সেকশনস

মুক্তাগাছায় পুলিশের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ

আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:০৪

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদে ও বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলনে অঝোরে কাঁদলেন কুতুবপুর গ্রামের ৭০ বছর বয়সের বৃদ্ধা খোদেজা খাতুন। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশের বিরুদ্ধে খোদেজা খাতুন তার পরিবারের সদস্যদের নির্যাতনের অভিযোগ এনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

লিখিত বক্তব্যে বৃদ্ধা খোদেজা খাতুন বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধে গত ৩১ ডিসেম্বর মধ্যরাতে পুলিশ তাকেসহ ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক, আব্দুর রাজ্জাক এবং ছেলের স্ত্রী সুলতানা বেগমকে থানায় ধরে নিয়ে যায়। পরে তাদের সাড়ে ৬ শতাংশ জমি প্রতিবেশী মানিক মিয়াকে দলিল করে দিতে চাপ দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় তাদের শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ১ জানুয়ারি বিকালে মানিক মিয়া মারপিট ও চুরির অভিযোগ এনে ৬ জনের নামে মামলা করলে, তাদের আদালতে পাঠায় পুলিশ। সেই সুযোগে মানিক মিয়া জমিটি বেদখল দিয়ে বাউন্ডারি দেয়।

খোদেজা খাতুনের ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, জমিতে তার মা ধান আবাদ করে চলতো। আমাকে কারখানা করে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিবে বলে এলাকার চিকু, সুরুজ, শরীফুল ইসলাম, হীরা, বাবুল এবং শাজাহান জমিটি মানিক মিয়াকে দানপত্র দলিল করে দিতে বলে। পরে ৭০ হাজার টাকার বিনিময়ে জমিটি দানপত্র দলিল করে দেই। কিন্তু এক বছর হয়ে গেলেও জমিতে কোনও কারখানা হয়নি। জমির মূল্য অনুযায়ী টাকা না দিয়ে তারা বেদখল দিয়েছে। জমিটি সাব কবলা করে দিতে আমার মাকে চাপ সৃষ্টি করে। এ নিয়েই তাদের সঙ্গে দ্বন্দ্ব হয়। কিন্তু পুলিশ কোনও কারণ ছাড়াই আমাদের ধরে নিয়ে মারপিট করে মামলা দিয়েছে। পরে তিনদিন জেল খাটার পর জামিনে বের হয়েছি। এখনও তারা নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে।

তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে মানিক মিয়া দাবি করেন, সাড়ে ৬ শতাংশ জমি আবু বক্কর সিদ্দিকের কাছ থেকে তিনি ক্রয় করেছেন। পরে জমিটি উদ্ধারে পুলিশের সহযোগিতা চেয়েছেন। এ নিয়ে এলাকায় দরবারও হয়েছে। তাতে কোনও লাভ হয়নি। এখন জমিতে বাউন্ডারি দিয়ে দখলে নিয়েছেন বলে জানান তিনি।

অন্যদিকে নির্যাতনের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন ক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস। তিনি বলেন, গত এক বছর আগে খোদেজা খাতুনের ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক জমিটি মানিক মিয়ার কাছে আড়াই লাখ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করলেও তা দখলে নিতে পারেনি। মানিক মিয়া মামলা দায়েরের পর আইনগতভাবেই তাদের গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

অপহরণের ৮ মাস পর মাদ্রাসাছাত্রী উদ্ধার

অপহরণের ৮ মাস পর মাদ্রাসাছাত্রী উদ্ধার

স্ত্রীর যৌতুকের মামলায় স্বামীর কারাদণ্ড

স্ত্রীর যৌতুকের মামলায় স্বামীর কারাদণ্ড

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের সনদ বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের সনদ বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ

সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলেসহ নিহত ৩

সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলেসহ নিহত ৩

শিশু সূচি হত্যা: মায়ের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

শিশু সূচি হত্যা: মায়ের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

গাছে ঝুলছিল কিশোরীর লাশ

গাছে ঝুলছিল কিশোরীর লাশ

সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জেলায় নিহত ৮

সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জেলায় নিহত ৮

মাছের দাম এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা!

মাছের দাম এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা!

জামালপুরে নির্বাচনে বিচ্ছিন্ন সহিংসতা, ৩টিতেই আ.লীগের জয় 

জামালপুরে নির্বাচনে বিচ্ছিন্ন সহিংসতা, ৩টিতেই আ.লীগের জয় 

সর্বশেষ

নারী নির্মাতাদের চলচ্চিত্র নিয়ে উৎসব

নারী নির্মাতাদের চলচ্চিত্র নিয়ে উৎসব

ইউটিউব থেকে বাদ পড়লো মিয়ানমারের ৫ টিভি চ্যানেল

ইউটিউব থেকে বাদ পড়লো মিয়ানমারের ৫ টিভি চ্যানেল

কোহলির ‘শূন্য’ রেকর্ড

কোহলির ‘শূন্য’ রেকর্ড

দেশ কোনও ভাষণে স্বাধীন হয়নি, হয়েছে যুদ্ধে: গয়েশ্বর

দেশ কোনও ভাষণে স্বাধীন হয়নি, হয়েছে যুদ্ধে: গয়েশ্বর

মোটরসাইকেলে জেলার গণ্ডি পেরোতে পারবে না পুলিশ

মোটরসাইকেলে জেলার গণ্ডি পেরোতে পারবে না পুলিশ

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ভাইয়ের কুড়ালের আঘাতে মৃত্যু

ভাইয়ের কুড়ালের আঘাতে মৃত্যু

করোনা মহামারির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে জন্মহার কমেছে

করোনা মহামারির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে জন্মহার কমেছে

আইনমন্ত্রীর সামনেই দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০

আইনমন্ত্রীর সামনেই দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি: কাদের

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি: কাদের

ডিজনির ‘ড্রাগন’ এলো ঢাকায়

ডিজনির ‘ড্রাগন’ এলো ঢাকায়

শামীম রেজার ‘পাথরচিত্রে নদীকথা’

শামীম রেজার ‘পাথরচিত্রে নদীকথা’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

অপহরণের ৮ মাস পর মাদ্রাসাছাত্রী উদ্ধার

অপহরণের ৮ মাস পর মাদ্রাসাছাত্রী উদ্ধার

স্ত্রীর যৌতুকের মামলায় স্বামীর কারাদণ্ড

স্ত্রীর যৌতুকের মামলায় স্বামীর কারাদণ্ড

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের সনদ বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের সনদ বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশ

সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলেসহ নিহত ৩

সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলেসহ নিহত ৩

শিশু সূচি হত্যা: মায়ের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

শিশু সূচি হত্যা: মায়ের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

গাছে ঝুলছিল কিশোরীর লাশ

গাছে ঝুলছিল কিশোরীর লাশ

সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জেলায় নিহত ৮

সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জেলায় নিহত ৮


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.