X

সেকশনস

অনুশোচনাবোধ থেকে মুক্তি পাবেন যেভাবে

আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০২০, ১৮:৫৪

জীবনে চলার পথে অনেক ধরনের ছোটখাট ভুল হয়ে যেতে পারে আমাদের, কারণ মানুষ মাত্রই ভুল। নিজের ভুল বুঝতে পারা কিংবা অনুশোচনাবোধের প্রয়োজন অবশ্যই আছে, তবে সেটা যেন মাত্রাতিরিক্ত না হয়ে যায়। সবসময় অপরাধবোধে দগ্ধ হতে থাকলে হতাশা গ্রাস করে। ভুল থেকে শেখার প্রয়োজন যেমন আছে, তেমনি সেই শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাওয়া চাই সামনের দিকে।


অনুশোচনাবোধের সঠিক কারণ খুঁজে বের করুন
নিজেকে কেন দোষী ভাবছেন সেটা নিয়ে ভাবুন। অন্য কেউ আপনাকে দোষী বলছে বলে অনুশোচনায় ভুগছেন না তো? যদি সেটাই হয় তাহলে পুরো ব্যাপারটি নিয়ে আরও একবার ভেবে দেখুন। অন্য কারোর প্রত্যাশা আপনি পূরণ করতে পারবেন না সবসময়, তাই ব্যাপারটি ঝেড়ে ফেলে দিন। যদি নিজের কাছে নিজেকেই দোষী মনে হয়, তবেই ব্যাপারটিকে গুরুত্ব দিন।
ডায়েরি লিখুন
যে ব্যাপারগুলো আপনাকে কষ্ট দিচ্ছে সেগুলো নোট করে রাখুন ডায়েরিতে। কেন এমনটি করেছেন সেটাও লিখুন। এতে কিছুটা হলেও ভালো বোধ করবেন।
নিজেকে সময় দিন
হতাশা, অপরাধবোধকে দূরে সরিয়ে কিছু সময়ের জন্য হলেও নিজেকে সময় দিন। পছন্দের কাজ করুন। সম্ভব হলে দূরে কোথাও থেকে ঘুরে আসুন।
সবার আগে নিজেকে গুরুত্ব দিন
অনেকেই আমাদের জীবনে গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু নিজের থেকে নয়। নিজেকে হারিয়ে ফেলবেন না কখনও। সবার আগে নিজেকে গুরুত্ব দিন। কারণ নিজে ভালো না থাকলে আশেপাশের কাউকেই ভালো রাখতে পারবেন না।  
ভুল শুধরে নিন
অপরাধবোধে না ভুগে সুযোগ থাকলে করে ফেলা ভুলগুলো শুধরে নিন। নিজে এগিয়ে যান পরিস্থিতি ঠিক করতে।
পরিস্থিতি শিকার হয়েছেন- ভাবতে পারেন এভাবেও
নিজের ভুল অবশ্যই আছে, কিন্তু পরিস্থিতিও অনুকূলে ছিল না। ভেবে দেখতে পারেন এভাবেও।
নিজেকে ক্ষমা করুন
অন্যের ক্ষমার চাইতেও গুরুত্বপূর্ণ নিজেকে ক্ষমা করা। নিজের ভুল বুঝতে পেরেছেন, নিজেকে ক্ষমা করার এটাই হতে পারে সবচেয়ে বড় কারণ।  
‘না’ বলার অভ্যাস করুন
প্রতিদিন অন্তত একবার ‘না’ বলার প্র্যাকটিস করুন। এতে অযাচিত অপরাধবোধকে বিদায় জানাতে পারবেন সহজে।  
নিজের ভালো দিকগুলো লিখে রাখুন
পয়েন্ট আকারে নিজের ভালো দিকগুলো টুকে রাখুন। বারবার পড়ুন, নিজেকে অপরাধী ভাববেন না।
ভবিষ্যতের কথা ভাবুন, পেছনে ফিরবেন না
কী কী ভুল করে ফেলেছেন সেটা নিয়ে না ভেবে সামনে যেন একই ভুল আর না হয় তা ভাবুন। ভুল থেকে শিক্ষা নিতে পেরেছেন, এটাকে ইতিবাচক ধরে এগিয়ে যান সামনে।

তথ্য- রিডার্স ডাইজেস্ট
     

/এনএ/

সম্পর্কিত

যেসব অভ্যাস আপনাকে তরুণ রাখবে দীর্ঘদিন

যেসব অভ্যাস আপনাকে তরুণ রাখবে দীর্ঘদিন

মোটরসাইকেলে আগ্রহ বেড়েছে নগরবাসীর

মোটরসাইকেলে আগ্রহ বেড়েছে নগরবাসীর

নতুন বছরে যেসব সংকল্প করবেন না মোটেই

নতুন বছরে যেসব সংকল্প করবেন না মোটেই

নতুন বছরের পরিকল্পনায় থাকুক এগুলো

নতুন বছরের পরিকল্পনায় থাকুক এগুলো

বাড়িতে থেকেই স্বাগত জানান নতুন বছরকে

বাড়িতে থেকেই স্বাগত জানান নতুন বছরকে

দিনাজপুরে দুই দিনব্যাপী পিঠা উৎসব

দিনাজপুরে দুই দিনব্যাপী পিঠা উৎসব

স্মৃতি ফামির ভার্চুয়াল রিয়েলিটি: অন্য এক বাস্তবতার গল্প

স্মৃতি ফামির ভার্চুয়াল রিয়েলিটি: অন্য এক বাস্তবতার গল্প

মাইক্রোগ্রিন মেটাবে সবুজের চাহিদা, আয়ের হাতছানিও আছে

মাইক্রোগ্রিন মেটাবে সবুজের চাহিদা, আয়ের হাতছানিও আছে

করোনা ঠেকাতে মাস্কের চেয়েও যা বেশি কাজ করবে

করোনা ঠেকাতে মাস্কের চেয়েও যা বেশি কাজ করবে

যাপিত জীবনে সেরা বাহন বাইক!

যাপিত জীবনে সেরা বাহন বাইক!

পাখিপ্রেমী চা দোকানি (ভিডিও)

পাখিপ্রেমী চা দোকানি (ভিডিও)

চুইঝালের চাষ বাড়ছে যশোরে

চুইঝালের চাষ বাড়ছে যশোরে

সর্বশেষ

মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মেলনে চক্রান্তকারীদের নিয়ে মুখ খুললেন বঙ্গবন্ধু

মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মেলনে চক্রান্তকারীদের নিয়ে মুখ খুললেন বঙ্গবন্ধু

গাজীপুরে করোনা ভ্যাকসিন দেবেন নার্স ও কমিউনিটি চিকিৎসা কর্মকর্তাগণ

গাজীপুরে করোনা ভ্যাকসিন দেবেন নার্স ও কমিউনিটি চিকিৎসা কর্মকর্তাগণ

মানিকগঞ্জে প্রসূতির রহস্যজনক মৃত্যু

মানিকগঞ্জে প্রসূতির রহস্যজনক মৃত্যু

স্মৃতি হারানো রোগে নিঃস্ব এক বাবার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান

স্মৃতি হারানো রোগে নিঃস্ব এক বাবার পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান

সৎ মেয়েকে হত্যার দায়ে মায়ের যাবজ্জীবন

সৎ মেয়েকে হত্যার দায়ে মায়ের যাবজ্জীবন

ভাতিজিকে ব্লেড দিয়ে আঁচড়ে দিয়ে রক্তাক্ত, চাচা গ্রেফতার

ভাতিজিকে ব্লেড দিয়ে আঁচড়ে দিয়ে রক্তাক্ত, চাচা গ্রেফতার

যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা

যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা

কালিহাতীতে আ.লীগের সম্মেলনে সংঘর্ষ, আহত ৪

কালিহাতীতে আ.লীগের সম্মেলনে সংঘর্ষ, আহত ৪

বাগেরহাট পৌরসভায় একক প্রার্থী হিসেবে বিজয়ের পথে ৩ কাউন্সিলর

বাগেরহাট পৌরসভায় একক প্রার্থী হিসেবে বিজয়ের পথে ৩ কাউন্সিলর

তারেক সোলেমানের পরিবারের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি নওফেলের

তারেক সোলেমানের পরিবারের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি নওফেলের

ছোটভাইয়ের দায়ের কোপে প্রাণ গেলো বড়ভাইয়ের

ছোটভাইয়ের দায়ের কোপে প্রাণ গেলো বড়ভাইয়ের

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার তিন শিক্ষককে অপসারণচেষ্টা!

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার তিন শিক্ষককে অপসারণচেষ্টা!

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

যেসব অভ্যাস আপনাকে তরুণ রাখবে দীর্ঘদিন

যেসব অভ্যাস আপনাকে তরুণ রাখবে দীর্ঘদিন

মোটরসাইকেলে আগ্রহ বেড়েছে নগরবাসীর

মোটরসাইকেলে আগ্রহ বেড়েছে নগরবাসীর

নতুন বছরে যেসব সংকল্প করবেন না মোটেই

নতুন বছরে যেসব সংকল্প করবেন না মোটেই

নতুন বছরের পরিকল্পনায় থাকুক এগুলো

নতুন বছরের পরিকল্পনায় থাকুক এগুলো

বাড়িতে থেকেই স্বাগত জানান নতুন বছরকে

বাড়িতে থেকেই স্বাগত জানান নতুন বছরকে

দিনাজপুরে দুই দিনব্যাপী পিঠা উৎসব

দিনাজপুরে দুই দিনব্যাপী পিঠা উৎসব

স্মৃতি ফামির ভার্চুয়াল রিয়েলিটি: অন্য এক বাস্তবতার গল্প

স্মৃতি ফামির ভার্চুয়াল রিয়েলিটি: অন্য এক বাস্তবতার গল্প

মাইক্রোগ্রিন মেটাবে সবুজের চাহিদা, আয়ের হাতছানিও আছে

মাইক্রোগ্রিন মেটাবে সবুজের চাহিদা, আয়ের হাতছানিও আছে

করোনা ঠেকাতে মাস্কের চেয়েও যা বেশি কাজ করবে

করোনা ঠেকাতে মাস্কের চেয়েও যা বেশি কাজ করবে

যাপিত জীবনে সেরা বাহন বাইক!

যাপিত জীবনে সেরা বাহন বাইক!


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.