সেকশনস

হিলিতে চামড়া কিনে বিপাকে আড়তদাররা

আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২০, ১৭:৩৫

 

হিলির আড়তে সংগৃহীত চামড়া চামড়া বিক্রির আগের টাকা না পেলেও ধার-দেনা করে এবার চামড়া কিনেছিলেন হিলির আড়তদাররা। তবে এখন তা বিক্রি করতে না পারায় বিপাকে পড়েছেন তারা। এখন পর্যন্ত কেউ চামড়া নিতে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। ট্যানারি মালিকরা সরকার নির্ধারিত মূল্যে চামড়া কিনছেন না, মূল্য পুনঃনির্ধারনের পর তারা চামড়া কিনবেন।

হিলির চামড়া পট্টির আড়তদার আমজাদ হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ট্যানারি মালিকদের কাছে গতবছরের কয়েক লাখ টাকা আটকা রয়েছে। এর পরেও আমরা বিভিন্ন এনজিওসহ মানুষের নিকট থেকে ধার দেনা করে চামড়া ক্রয় করে তা লবন দিয়ে সংরক্ষণ করেছি। কিন্তু আমরা নিচে ২০০ টাকা থেকে শুরু করে উপরে ৬০০ টাকা পর্যন্ত দরে গরুর চামড়া কিনে এখন বিপাকের মধ্যে পড়েছি। খরচ দিয়ে আমাদের প্রকারভেদে চামড়া ভেদে দাম পড়েছে ৫০০-৭০০ টাকা। কিন্তু এখন বিক্রি করতে গেলে অর্ধেক দাম বলছে। এর উপর কোন ট্যানারি মালিক বা মহাজন কেউ এখন পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন না।

হিলির আড়তে সংগৃহীত চামড়া তিনি আরও বলেন, আমরা ট্যানারি মালিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা সরকার যে মূল্য নির্ধারণ করেছে, ওই রেটে সরকারের কাছে চামড়া বিক্রি করেন। ওই নির্ধারিত মূল্যে আমাদের চামড়া কিনতে পারবে না, যদি মূল্য পুনঃনির্ধারণ হয় তারপর চামড়া কিনবে। কিন্তু এখন আমরা এই চামড়া নিয়ে কী করবো, চামড়াতো কিনে ফেলেছি। কিন্তু বিক্রি করবো কোথায়?

তিনি জানান, ইতোমধ্যে তার এক হাজারের মতো ছাগলের চামড়া পচে গেছে। সরকার কোনও ব্যবস্থা না নিলে বেড় লোকসানের মুখে পড়তে হবে বলে জানান তিনি।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

কারামুক্তির ৩ দিন আগে কারাগারেই মৃত্যু

কারামুক্তির ৩ দিন আগে কারাগারেই মৃত্যু

কুড়িগ্রামে দুই ইউপি চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত

কুড়িগ্রামে দুই ইউপি চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত

দেশের শেয়ার বাজারের উন্নয়নে কাজ করবে লন্ডন স্টক এক্সচেঞ্জ

দেশের শেয়ার বাজারের উন্নয়নে কাজ করবে লন্ডন স্টক এক্সচেঞ্জ

ফের পেছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে গেলেন বেরোবি উপাচার্য

ফের পেছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে গেলেন বেরোবি উপাচার্য

রফতানি শিল্পের জন্য এক হাজার কোটি টাকার তহবিল গঠন

রফতানি শিল্পের জন্য এক হাজার কোটি টাকার তহবিল গঠন

‘কাজ করার সুযোগ না দিলে উপজেলা পরিষদ বিলুপ্ত করুন’

‘কাজ করার সুযোগ না দিলে উপজেলা পরিষদ বিলুপ্ত করুন’

অর্থনীতি আরও গতিশীল হবে: অর্থমন্ত্রী

অর্থনীতি আরও গতিশীল হবে: অর্থমন্ত্রী

সর্বশেষ

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

বাউফলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

বাউফলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

বৃহত্তর চান্দগাঁও-মোহরাকে আধুনিক উপশহর করার প্রতিশ্রুতি ডা. শাহাদাতের

বৃহত্তর চান্দগাঁও-মোহরাকে আধুনিক উপশহর করার প্রতিশ্রুতি ডা. শাহাদাতের

হকারদের সুস্পষ্ট নীতিমালা করে পুনর্বাসন করা হবে: রেজাউল করিম চৌধুরী

হকারদের সুস্পষ্ট নীতিমালা করে পুনর্বাসন করা হবে: রেজাউল করিম চৌধুরী

কাউকেই নির্বাচনি সহিংসতা ঘটাতে দেওয়া হবে না: সিএমপি কমিশনার

কাউকেই নির্বাচনি সহিংসতা ঘটাতে দেওয়া হবে না: সিএমপি কমিশনার

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

জোহরা আলাউদ্দিন এমপি করোনায় আক্রান্ত

জোহরা আলাউদ্দিন এমপি করোনায় আক্রান্ত

ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার, কারবারি গ্রেফতার

ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার, কারবারি গ্রেফতার

কলাবাগানে কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে সহপাঠীদের দেয়াল লিখন

কলাবাগানে কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে সহপাঠীদের দেয়াল লিখন

বাস-ট্রাক মুখোমুখি, চালক নিহত

বাস-ট্রাক মুখোমুখি, চালক নিহত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

নীলফামারীজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

আগুন তাপাতে গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী দগ্ধ

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

উপজেলা পরিষদকে কার্যকর করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

নীলফামারীতে পৃথকভাবে ৩৫০ জনের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

কারামুক্তির ৩ দিন আগে কারাগারেই মৃত্যু

কারামুক্তির ৩ দিন আগে কারাগারেই মৃত্যু

কুড়িগ্রামে দুই ইউপি চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত

কুড়িগ্রামে দুই ইউপি চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত

ফের পেছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে গেলেন বেরোবি উপাচার্য

ফের পেছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে গেলেন বেরোবি উপাচার্য

‘কাজ করার সুযোগ না দিলে উপজেলা পরিষদ বিলুপ্ত করুন’

‘কাজ করার সুযোগ না দিলে উপজেলা পরিষদ বিলুপ্ত করুন’

ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন, সন্তানের পিতৃত্বের স্বীকৃতির আদেশ  

ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন, সন্তানের পিতৃত্বের স্বীকৃতির আদেশ  


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.