X

সেকশনস

ইসরায়েলের বসতি এখনও বেআইনি: জাতিসংঘ ও রেড ক্রস

আপডেট : ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০১:৪৯

দখলকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরায়েলি বসতি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে জাতিসংঘ ও ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেড ক্রস (আইসিআরসি)। মঙ্গলবার উভয় সংস্থা বলেছে, ইসরায়েলি বসতি এখনও আইন্তর্জাতিক আইনবিরোধী। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

সোমবার ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বসতি নিয়ে অবস্থান বদল করে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, এসব বসতি এখন আর আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গে সঙ্গতিহীন বলে বিবেচনা করবে না তার দেশ। তিনি দাবি করেন, পশ্চিম তীর ইসরায়েলের। পম্পেওর এই অবস্থানকে তাৎক্ষণিকভাবে স্বাগত জানিয়েছেন এক ইসরায়েলি মন্ত্রী। তবে এই পদক্ষেপকে দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে মন্তব্য করেছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ। এবার জাতিসংঘ ও রেড ক্রস এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করলো।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক মুখপাত্র রুপার্ট কলভিল এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমরা জাতিসংঘের দীর্ঘদিনের অবস্থান অনুসরণ করব যাতে ইসরায়েলের বসতিকে আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন মনে করা হয়’।

রুপার্ট আরও বলেন, ‘একটি দেশের অবস্থান বদলের ফলে চলমান আন্তর্জাতিক আইন পাল্টে যায় না বা আন্তর্জাতিক কোর্ট অব জাস্টিসের ও নিরাপত্তা পরিষদের ব্যাখ্যা বদলে যায় না’।

২০০৪ সালে ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস এক পরামর্শক অভিমতে জানায়, পূর্ব জেরুজালেমসহ দখলকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরায়েলের বসতি স্থাপন আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।

মানবাধিকার মুখপাত্র আরও বলেন, ১৯৪৯ সালের চতুর্থ জেনেভা কনভেনশনে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল স্বাক্ষর করেছে। এতে বলা হয়েছে, কোনও দখলদার শক্তি দখলকৃত ভূখণ্ডে নিজেদের বেসামরিক নাগরিকদের স্থানান্তর করতে পারবে না।

জেনেভা কনভেনশনের তত্ত্বাবধায়ক আইসিআরসি পশ্চিমতীরকে দখলকৃত ভূখণ্ড হিসেবে তাদের অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করেছে। সংস্থাটির মুখপাত্র ইভান ওয়াটসন বলেন, আইসিআরসি বারবার বলে আসছে যে ইসরায়েলের বসতি স্থাপন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন (আইএইচএল) বা দখল আইনের লক্ষ্য ও চেতনা বিরোধী। যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক ঘোষণায় এই বিষয়ে আইসিআরসির অবস্থান পাল্টায়নি।

বেশ কয়েকটি মানবাধিকার সংস্থা ও এনজিও যুক্তরাষ্ট্রের এই নতুন অবস্থান প্রত্যাখ্যান করেছে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের ওয়াশিংটন পরিচালক এক বিবৃতিতে বলেন, এতে কিছুই পাল্টায় না। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কয়েক দশকের আইন উড়িয়ে দিতে পারেন না। যে আন্তর্জাতিক আইনে বসতি স্থাপনকে যুদ্ধাপরাধ উল্লেখ করা হয়েছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ফিলিপ নাসিফ বলেছেন, বসতি স্থাপন ও তা অব্যাহত রাখা আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন ও যুদ্ধাপরাধের শামিল।

/এএ/

সম্পর্কিত

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

পাকিস্তানকে ২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দিতে চায় চীনের ক্যানসিনো

পাকিস্তানকে ২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দিতে চায় চীনের ক্যানসিনো

লন্ডনে ‘ব্রিটিশ হেলথ এলায়েন্স’র যাত্রা শুরু

লন্ডনে ‘ব্রিটিশ হেলথ এলায়েন্স’র যাত্রা শুরু

টুইটারে ট্রাম্পের ছবি পোস্ট করে প্রতিশোধের হুমকি খামেনির

টুইটারে ট্রাম্পের ছবি পোস্ট করে প্রতিশোধের হুমকি খামেনির

করোনা ঠেকাতে ভ্রমণ বিধিনিষেধ জারির পক্ষে ইইউ নেতারা

করোনা ঠেকাতে ভ্রমণ বিধিনিষেধ জারির পক্ষে ইইউ নেতারা

মেঘালয়ের জঙ্গলে খাদে পড়ে ছয় অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু

মেঘালয়ের জঙ্গলে খাদে পড়ে ছয় অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু

রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে চান বাইডেন

রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে চান বাইডেন

জার্মানিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা অর্ধলক্ষ ছাড়িয়েছে

জার্মানিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা অর্ধলক্ষ ছাড়িয়েছে

সর্বশেষ

নতুন ঘর পেয়ে খুশি সুকজান বেগম

নতুন ঘর পেয়ে খুশি সুকজান বেগম

‘জীবনেও ভাবি নাই পাক্কা ঘরে ঘুমামু’

‘জীবনেও ভাবি নাই পাক্কা ঘরে ঘুমামু’

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

কেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

শুভ জন্মদিন নায়করাজ রাজ্জাককেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

পাকিস্তানকে ২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দিতে চায় চীনের ক্যানসিনো

পাকিস্তানকে ২ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দিতে চায় চীনের ক্যানসিনো

লন্ডনে ‘ব্রিটিশ হেলথ এলায়েন্স’র যাত্রা শুরু

লন্ডনে ‘ব্রিটিশ হেলথ এলায়েন্স’র যাত্রা শুরু

টুইটারে ট্রাম্পের ছবি পোস্ট করে প্রতিশোধের হুমকি খামেনির

টুইটারে ট্রাম্পের ছবি পোস্ট করে প্রতিশোধের হুমকি খামেনির

করোনা ঠেকাতে ভ্রমণ বিধিনিষেধ জারির পক্ষে ইইউ নেতারা

করোনা ঠেকাতে ভ্রমণ বিধিনিষেধ জারির পক্ষে ইইউ নেতারা

মেঘালয়ের জঙ্গলে খাদে পড়ে ছয় অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু

মেঘালয়ের জঙ্গলে খাদে পড়ে ছয় অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু

রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে চান বাইডেন

রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে চান বাইডেন


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.