সেকশনস

সব ওয়ার্ডে একটি করে কমিউনিটি সেন্টার হবে: তাপস

আপডেট : ২১ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৪৩

দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সব ওয়ার্ডে একটি করে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র  নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএসসিসি’র মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে নগর ভবনে  ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় পরিবার-পরিকল্পনা  জোরদারকরণ কর্মসূচির দ্বিমাসিক পর্যালোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে মেয়র এ তথ্য জানান।

ডিএসসিসি’র মেয়র তাপস বলেন, ‘আমাদের নতুন ১৮টি ওয়ার্ডসহ যেসব ওয়ার্ডে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র  (কমিউনিটি সেন্টার) নেই, সে সব ওয়ার্ডে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র নির্মাণের জন্য  প্রকল্প প্রস্তাবনা প্রণয়ন করে মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি।  সে অনুযায়ী  ওই সব ওয়ার্ডে একটি করে নতুন পাঁচ তলা  ভবনের  সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র নির্মাণ করবো। সেসব ভবনে একটি ফ্লোরে  কাউন্সিলরের কার্যালয় থাকবে এবং আরেকটি ফ্লোরে ‘নগদ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র’ করে দেবো। যাতে করে সকল কার্যক্রমগুলো এক জায়গা থেকে হয় এবং যাতে মানুষ জানে,এই ওয়ার্ডের এই কার্যালয় ও সেই কার্যালয়ে গেলেই করপোরেশনের সেবা নিশ্চিত হবে।’

পরিবার-পরিকল্পনা একটি অবহেলিত খাত ছিল। কিন্তু আমরা সেটাকে গুরুত্ব দিয়েছি উল্লেখ করে ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস আরও বলেন, ‘আমি মনে করি, এটি একটি মৌলিক সেবার জায়গা। এটি একটি প্রাথমিক সেবার জায়গা। এই জায়গাটা আগে নিশ্চিত হলে, পরবর্তীতে সেবার জায়গাগুলো আমরা নির্ধারণ করতে পারবো। তার উৎকর্ষতা বাড়াতে পারবো, মান বাড়াতে পারবো।’

সভায় কয়েকটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর যে সব সংস্থার মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম প্রদান করছেন, সেসব সংস্থা তাদের সঙ্গে সমন্বয় করে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম প্রদান করছেন না বলে জানান। বিদ্যমান এই সমন্বয়হীনতা দূর করার জন্য  মেয়র তাপস প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘আমি আশাবাদী যে, আগের তুলনায় সম্পৃক্ততা বেড়েছে, সমন্বয় বেড়েছে।  বাকি যতটুকু সমন্বয়হীনতা রয়েছে, তা দূর করার জন্য আপনি (প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা) উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। আমার সভাপতিত্বে যে দ্বিমাসিক সভা হচ্ছে, তার আগেই প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সভাপতিত্বে প্রতি মাসে একটি সভা হওয়া প্রয়োজন। এর মাধ্যমে মাসিক কতটুকু অগ্রগতি অর্জিত হলো— সেটা যেমন জানা যাবে, তেমনই দ্বিমাসিক এই পর্যালোচনা সভা আরও বেশি ফলপ্রসূ হবে।’

ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জনসংখ্যা বিস্ফোরণকে এক নম্বর সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন। সেই আলোকে সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে, সোনার মানুষ গড়ার লক্ষ্যে পরিকল্পিত পরিবার একটি আবশ্যকীয় বিষয়। সেই প্রেক্ষাপটে এই কার্যক্রমকে বেগবান করার জন্য এরই মাঝে আমরা মনোযোগ দিয়েছি। এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এই দ্বিমাসিক পর্যালোচনা সভা। সেখানে আমাদের মূল কাজই হলো সমন্বয় করে দেওয়া। তাই, এই কার্যক্রম সমন্বয়ের মাধ্যমে গতিশীল করা আমাদের লক্ষ্য।’  

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (ডা.) শরীফ আহমেদের সঞ্চালনায় সভায় দক্ষিণ সিটির সচিব আকরামুজ্জামান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তা,কাউন্সিলর এবং যে সব এনজিওর মাধ্যমে এই কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়, সেসব এনজিও’র প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, নতুন ১৮টি ওয়ার্ডসহ দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মোট ৩৭টি ওয়ার্ডে নতুন করে সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্র নির্মাণ এবং বিদ্যমান সামাজিক অনুষ্ঠান কেন্দ্রগুলোর মধ্যে ছয়টি সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

/এসএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

‘বঙ্গবন্ধু ছিলেন সারা বিশ্বের বঞ্চিত মানুষের নেতা’

‘বঙ্গবন্ধু ছিলেন সারা বিশ্বের বঞ্চিত মানুষের নেতা’

শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেবে সরকার, আবেদনের নির্দেশ

শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেবে সরকার, আবেদনের নির্দেশ

চাকরির কথা বলে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে দুই জন কারাগারে

চাকরির কথা বলে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে দুই জন কারাগারে

কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির অভিযান শুরু

কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির অভিযান শুরু

অনুদানের খবরে শিক্ষার্থীদের আবেদনের হিড়িক, যা বলছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

অনুদানের খবরে শিক্ষার্থীদের আবেদনের হিড়িক, যা বলছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

শিক্ষা ব্যবস্থার সংস্কারে ২০ বছর  লাগবে: রেজা কিবরিয়া

শিক্ষা ব্যবস্থার সংস্কারে ২০ বছর  লাগবে: রেজা কিবরিয়া

‘নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া টেকসই উন্নয়ন অসম্ভব’

‘নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া টেকসই উন্নয়ন অসম্ভব’

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা ঠেকাতে যা করলো বাংলাদেশ

করোনা ঠেকাতে যা করলো বাংলাদেশ

সর্বশেষ

ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় গৃহবধূ রহিমাকে, গ্রেফতার ২

ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় গৃহবধূ রহিমাকে, গ্রেফতার ২

ভারতে ১৬০ রোহিঙ্গা আটক

ভারতে ১৬০ রোহিঙ্গা আটক

আফগানিস্তান ‘না’ বললেও পিছু হটছে না বাংলাদেশ

আফগানিস্তান ‘না’ বললেও পিছু হটছে না বাংলাদেশ

‘বঙ্গবন্ধু ছিলেন সারা বিশ্বের বঞ্চিত মানুষের নেতা’

‘বঙ্গবন্ধু ছিলেন সারা বিশ্বের বঞ্চিত মানুষের নেতা’

সাতছড়িতে উদ্ধার রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা নিষ্ক্রিয়

সাতছড়িতে উদ্ধার রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা নিষ্ক্রিয়

বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের আগুনে পুড়লো ২৩টি ঘর

বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের আগুনে পুড়লো ২৩টি ঘর

পিঠা পুলি ও নকশিকাঁথা বুননের মাঝে নারী দিবসের তাৎপর্য শেখা

পিঠা পুলি ও নকশিকাঁথা বুননের মাঝে নারী দিবসের তাৎপর্য শেখা

সাংবাদিক মোশাররফ রুমি মারা গেছেন

সাংবাদিক মোশাররফ রুমি মারা গেছেন

কালো কাপড় বেঁধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি

কালো কাপড় বেঁধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি

নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শরিয়াহ আইনের বিকল্প নাই: ইসলামী আন্দোলন

নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শরিয়াহ আইনের বিকল্প নাই: ইসলামী আন্দোলন

ধর্ষণের শিকার নারীর ছবি-পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না

ধর্ষণের শিকার নারীর ছবি-পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না

মায়ের জন্য মুক্তি মিলছে শাহাদতের

মায়ের জন্য মুক্তি মিলছে শাহাদতের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেবে সরকার, আবেদনের নির্দেশ

শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেবে সরকার, আবেদনের নির্দেশ

চাকরির কথা বলে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে দুই জন কারাগারে

চাকরির কথা বলে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে দুই জন কারাগারে

কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির অভিযান শুরু

কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির অভিযান শুরু

অনুদানের খবরে শিক্ষার্থীদের আবেদনের হিড়িক, যা বলছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

অনুদানের খবরে শিক্ষার্থীদের আবেদনের হিড়িক, যা বলছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

‘নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া টেকসই উন্নয়ন অসম্ভব’

‘নারীর সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া টেকসই উন্নয়ন অসম্ভব’

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

করোনা জালিয়াতির মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন নামঞ্জুর

আমাদের সব কার্যক্রমই ঢাকাবাসীর সেবায়: তাপস

আমাদের সব কার্যক্রমই ঢাকাবাসীর সেবায়: তাপস


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.