সেকশনস

রাব্বানিই মোটরসাইকেল নিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে ওঠা সেই যুবক!

আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:৫৩

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বানী রবি।


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল চালানোরত অবস্থায় যে যুবকের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে তিনি গোলাম রাব্বানি রবি ছিলেন বলে নিশ্চিত করেছে তার সংগঠন ছাত্রলীগের একাধিক নেতা-কর্মী। ওইদিন ক্যাম্পাসে ছিলেন না বলে রবি যে দাবি করেছেন সে তথ্যও সঠিক নয়। বাংলা ট্রিবিউনের অনুসন্ধানে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থীর বক্তব্যে এ তথ্য উঠে এসেছে।

মঙ্গলবার রাতের ওই ঘটনাটির সংবাদ বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) বাংলা ট্রিবিউনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সজীব বাংলা ট্রিবিউনকে সেদিনই নিশ্চিত করেন, তাদের আড্ডায় থাকা রবিই হুট করে  মোটরসাইকেল স্টার্ট দিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে উঠে পড়েন।  তবে বুধবার এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা না বললেও রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের লাইভ অনুষ্ঠানে বাইক চালানো সেই যুবক তিনি নন বলে দাবি করেন রাব্বানি। এ সময় তিনি আরও দাবি করেন, মঙ্গলবার তিনি ক্যাম্পাসেই ছিলেন না এবং তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। প্রতিপক্ষ তাকে ফাঁসাতে তার নামে এমন অপপ্রচার চালাচ্ছে।

গোলাম রাব্বানি রবি’র এমন বক্তব্যের পরে বিষয়টি যাচাই করার জন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতা-কর্মীসহ তিনি যে হলে থাকেন সেই হলের অন্যান্য শিক্ষার্থী, ওইদিন শহীদ বেদিতে থাকা অন্যান্য শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা হয় বাংলা ট্রিবিউন প্রতিনিধির। এ অনুসন্ধানে জানা গেছে, গত তিনদিন ধরেই রবি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আছেন এবং তার শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল নিয়ে ওঠার বিষয়ে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কেন্দ্রীয় নেতারা অবগত। এ কারণে আজ তাকে কারণ দর্শাও নোটিশও দিয়েছে রাবি শাখা ছাত্রলীগ। একইসঙ্গে বিষয়টি অবহিত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছে।

পাশাপাশি জানা গেছে, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী রবি। এমন একটি সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে তিনি কী করে শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল নিয়ে উঠতে পারেন তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক শিক্ষার্থী।

ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বানি রবি

ছাত্রলীগ নেতাদের অনেকেই বলছেন, ছবিটি দূর থেকে তোলা এবং খানিক অস্পষ্টতা থাকায় এটি নিজের ছবি নয় বলে সুযোগ নিতে চাইছেন গোলাম রাব্বানী রবি। কিন্তু, তার সঙ্গে সেসময়ে ওইস্থানে যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের সাক্ষ্য নিলেই রবি আর দায় এড়াতে পারবেন না। এদের মধ্যে রাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সজীব প্রকাশ্যে ঘটনার বর্ণনা দিলেও বাকিরা এই মুহূর্তে গণমাধ্যমকে এড়িয়ে চলছেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ তাদের তদন্তের জন্য যদি এদের ডাকেন তাহলে তারা সেখানে বক্তব্য দেবেন।     

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও রাবি ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সজীব বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ‘আমরা শহীদ মিনারের সামনে আড্ডা দিচ্ছিলাম। আড্ডার একপর্যায়ে রাব্বানি বাইক স্টার্ট দেয়। আমরা ভেবেছিলাম সে চলে যাচ্ছে। তবে হঠাৎ সে বাইক নিয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে উঠে পড়ে। তার এই কর্মকাণ্ডে আমরা অবাক হই। সে নেমে আসার পর এই কাজের জন্য তাকে বকাঝকাও করেছি।’

ওই সময়ে ঘটনাস্থলে ছিলেন এমন কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলেও রাব্বানির বাইক চালানোর বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায়। তবে তারা নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি। তারা জানান, কয়েকজন সেখানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন। হঠাৎ করে এক যুবক বাইক নিয়ে বেদিতে উঠে পড়েন। পরে তাদেরকে রাব্বানির ছবি দেখানো হলে তারা বলেন, ‘এই ছেলেটিই রাতে বাইক নিয়ে বেদিতে উঠেছিল।’

তবে গোলাম রাব্বানির দাবি, ‘আমাকে জড়িয়ে শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল চালানোর মিথ্যা সংবাদ গণমাধ্যমে ছাপানো হয়েছে। সেখানে রাত ১১টার কথা বলা হয়েছে। অথচ আমি মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে রুমে ফিরেছি।’

রাব্বানি বর্তমানে শহীদ হবিবুর রহমান হলের ৩৩৮ নম্বর কক্ষের বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহীদ হবিবুর রহমান হলের সেই রুমে গিয়ে রাব্বানির দাবির কোনও সত্যতা মেলেনি। ওই কক্ষের দুই শিক্ষার্থী এগ্রোনোমি অ্যান্ড এগ্রিকালচারাল এক্সটেনশন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আবেদুর রহমান ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মইনুল জানান, ‘চার সিট বিশিষ্ট এই কক্ষের দুটিতে তারা থাকেন। অন্য একটিতে থাকেন গোলাম রাব্বানি রবি। তিনি কিছুদিন হলো এই রুমে উঠেছেন। তবে তিনি কখনও রুমে থাকেন, কখনও থাকেন না।’

মঙ্গলবার রাতে রবি কখন কক্ষে ফিরেছিলেন জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘কখন রুমে ফিরেছেন সঠিক করে বলতে পারছি না। তবে আমরা রাতে দেড়-দুইটা পর্যন্ত জেগেছিলাম। কিন্তু তখনও তিনি রুমে ফেরেননি। সকালেও তাকে দেখিনি।’

এর পাশের কক্ষগুলোর কেউ মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বা তার পরে রবিকে তার কক্ষে বা হলে দেখেছেন বলে মনে করতে পারছেন না।
এ তথ্য জানিয়ে মঙ্গলবার কোথায় ছিলেন জানতে চাইলে রাব্বানি রবি আবার কথা ঘুরিয়ে বলেন, ‘মঙ্গলবার সকালে ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে যাই, রাতে ফিরি।’

তবে তার এ দাবিটিও সত্যি নয়। রাব্বানিকে ওইদিন দুপুরে ক্যাম্পাসে ঘুরতে দেখেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ছাত্রলীগের একাধিক নেতা । ওইদিন (মঙ্গলবার) রাত সাড়ে ৯টার দিকে শের-ই বাংলা হলে তাকে দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন হল ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে শের-ই-বাংলা হলের দ্বিতীয় তলায় থাকেন এমন এক ছাত্রলীগ নেতা বলেন, ‘রাব্বানি ভাইকে রাত ৯টার দিকে আমি হলের তৃতীয় তলার সিঁড়ি দিয়ে ওপরে উঠতে দেখেছি।’ এসব তথ্যের অডিও রেকর্ড রয়েছে বাংলা ট্রিবিউনের কাছে। ওই নেতার ধারণা, এখান থেকেই অন্য ছাত্রলীগ নেতাদের সঙ্গে শহীদ মিনারের পাশে গিয়ে বসেন রবি। পরে সেখান থেকেই হুট করে মোটরসাইকেল নিয়ে শহীদ মিনারের বেদীতে উঠে পড়েন তিনি।  

তাহলে রাত ৯টার দিকে তিনি কীভাবে নিজের কক্ষে ফিরলেন এমন প্রশ্ন করলে গোলাম রাব্বানী রবি এবার বলেন, ‘ভাই আমাকে এত প্রশ্ন কইরেন না, আমি সব জড়াই (গুলিয়ে) ফেলবো।’

এদিকে, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সাধারণ সম্পাদক হয়ে গোলাম রাব্বানী রবি’র শহীদ মিনারের বেদিতে মোটরসাইকেল নিয়ে ওঠার ঘটনাটি বিব্রত করেছে এই সংগঠনের অপরাপর নেতা-কর্মী ও সদস্যদের। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,‘গোলাম রাব্বানী রবি’র বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তাতে আমরা বিব্রত। যদি তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।’

 

/টিএন/

সম্পর্কিত

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র!

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র!

এনআইডি জালিয়াতি:  ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

এনআইডি জালিয়াতি: ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা প্রত্যাহার চেয়ে  ‘সিটিও ফোরাম’ সভাপতির চিঠি

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা প্রত্যাহার চেয়ে  ‘সিটিও ফোরাম’ সভাপতির চিঠি

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদে ভোটের তারিখ ঘোষণা

৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদে ভোটের তারিখ ঘোষণা

তিন অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল

তিন অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল

নদীর সমস্যা সমাধানে গবেষণার বিকল্প নেই: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

নদীর সমস্যা সমাধানে গবেষণার বিকল্প নেই: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

বাংলাদেশ মেডিক্যাল টিম এখন মালদ্বীপে

বাংলাদেশ মেডিক্যাল টিম এখন মালদ্বীপে

সর্বশেষ

আসামির নাম জামাল, গ্রেফতার হলেন কামাল!

আসামির নাম জামাল, গ্রেফতার হলেন কামাল!

অভয়াশ্রমে মাছ শিকারের অভিযোগ: ১৮ জেলের জেল-জরিমানা

অভয়াশ্রমে মাছ শিকারের অভিযোগ: ১৮ জেলের জেল-জরিমানা

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র!

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র!

র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক কারবারি নিহত

র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক কারবারি নিহত

এইচ টি ইমাম আর নেই

এইচ টি ইমাম আর নেই

পাসপোর্ট করতে গিয়ে রোহিঙ্গা নারীসহ গ্রেফতার ২

পাসপোর্ট করতে গিয়ে রোহিঙ্গা নারীসহ গ্রেফতার ২

১৮ মার্চ তাদের ‘কন্ট্রাক্ট’

১৮ মার্চ তাদের ‘কন্ট্রাক্ট’

‘বন্ধ’ হলেও দিব্যি আছেন তারা

‘বন্ধ’ হলেও দিব্যি আছেন তারা

অনুরাগ-তাপসীর বাসায় আয়কর বিভাগের হানা

অনুরাগ-তাপসীর বাসায় আয়কর বিভাগের হানা

লক্ষ্মীপুরের পোড়াগাছায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের অনুমোদন

লক্ষ্মীপুরের পোড়াগাছায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের অনুমোদন

সড়কে নবনির্বাচিত মেয়রের স্ত্রী-ছেলেসহ নিহত ৩

সড়কে নবনির্বাচিত মেয়রের স্ত্রী-ছেলেসহ নিহত ৩

আজ ঢাকা আসছেন জয়শঙ্কর

আজ ঢাকা আসছেন জয়শঙ্কর

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র!

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র!

অবশেষে মায়ের কোলে ফিরলো বিক্রি হওয়া ২২ দিনের শিশু

অবশেষে মায়ের কোলে ফিরলো বিক্রি হওয়া ২২ দিনের শিশু

দিনমজুরের সঞ্চয়ে গড়া গ্রাম পাঠাগার 'সাতভিটা গ্রন্থনীড়'

দিনমজুরের সঞ্চয়ে গড়া গ্রাম পাঠাগার 'সাতভিটা গ্রন্থনীড়'

হাতিয়ায় গৃহবধূকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

হাতিয়ায় গৃহবধূকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

ভাসানচরে যাচ্ছেন আরও ২ হাজার ২৫৭ জন রোহিঙ্গা

পঞ্চম ধাপের প্রথম দফায় স্থানান্তরভাসানচরে যাচ্ছেন আরও ২ হাজার ২৫৭ জন রোহিঙ্গা

অস্ত্র ও গোলাবারুদ মজুতের সংবাদে সাতছড়িতে অভিযান

অস্ত্র ও গোলাবারুদ মজুতের সংবাদে সাতছড়িতে অভিযান

বেরোবিতে হল ও ভবন নির্মাণে অনিয়ম, উপাচার্যকে দায়ী করে প্রতিবেদন

প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদিত নকশা পরিবর্তনবেরোবিতে হল ও ভবন নির্মাণে অনিয়ম, উপাচার্যকে দায়ী করে প্রতিবেদন

স্ত্রীর প্রাইভেট কার নিজের নামে করায় ব্যবসায়ী পিটারের কারাদণ্ড

স্ত্রীর প্রাইভেট কার নিজের নামে করায় ব্যবসায়ী পিটারের কারাদণ্ড

রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশস্থলে বিএনপি নেতাকর্মীদের হাতাহাতি

রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশস্থলে বিএনপি নেতাকর্মীদের হাতাহাতি

বিএনপিকে প্রতিহত করতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাই যথেষ্ট: লিটন

বিএনপিকে প্রতিহত করতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাই যথেষ্ট: লিটন


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.